স্কুলজীবন শেষ করেই কত টাকা বেতনের চাকরি প্রত্যাশা করতে পারেন। লাখের ঘরে নিশ্চয়ই নয়। কিন্তু ভারতের এমনই এক শিক্ষার্থী পাবে মাসে ১২ লাখ রুপি। অবিশ্বাস্য মনে হলেও সত্য, বিশ্বের বৃহত্তম ইন্টারনেট প্রতিষ্ঠান গুগল হর্ষিত শর্মা নামের ওই শিক্ষার্থীকে বার্ষিক ১ কোটি ৪৪ লাখ রুপি বেতনে নিয়োগ দিয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৬ বছর বয়সী হর্ষিত শর্মা গুগলের গ্রাফিকস ডিজাইন দলে যোগ দিতে চলতি মাসেই যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হর্ষিত ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের কুরুক্ষেত্রের মাথানা এলাকার বাসিন্দা। সে চণ্ডিগড়ে গভ. মডেল সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলে তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে দ্বাদশ শ্রেণির পড়াশোনা সম্প্রতি শেষ করেছে। গুগলে যোগদান করেই এক বছরের প্রশিক্ষণ নিতে হবে তাকে। এই প্রশিক্ষণ সময়ে সে মাসে চার লাখ রুপি করে পাবে। প্রশিক্ষণ শেষে এক লাফে তার বেতন বেড়ে হবে মাসে ১২ লাখ রুপি।

হর্ষিত বলেছে, ‘আমি অনলাইনে চাকরি খুঁজতাম। এই চাকরির জন্য মে মাসে আমি আবেদন করেছিলাম। পরে অনলাইনে তারা আমার সাক্ষাৎকার নেয়। গত ১০ বছর থেকেই গ্রাফিক ডিজাইনের ওপর আমার বিশেষ ঝোঁক রয়েছে। এর আগে আমি বেশ কিছু পোস্টার ডিজাইন করেছিলাম। তার ভিত্তিতেই গুগল আমাকে নির্বাচিত করেছে।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, হর্ষিতের মা–বাবা শিক্ষকতা করেন। তার ছোট ভাই দশম শ্রেণিতে পড়ে। সে চাচার বাসায় থেকে স্কুলে যাতায়াত করত।

চণ্ডিগড়ে গভ. মডেল সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলের শিক্ষক দীপ কিরণ বলেন, ‘হর্ষিত খুবই মেধাবী।’

স্কুলের অধ্যক্ষ ইন্দ্র বেনিওয়াল বলেন, ‘হর্ষিত অলরাউন্ডার। সে আমাদের স্কুলের জন্য সুনাম বয়ে এনেছে। ২০১৬ সালে আমাদের স্কুল স্মার্ট স্কুলের খেতাব পায়। এর জন্য নানা কাজে হর্ষিত শিক্ষকদের সহায়তা করেছে। প্রযুক্তির ওপর তার বিশেষ ঝোঁক রয়েছে।’ তিনি বলেন, এর আগে প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল ইন্ডিয়া স্কিমে সাত হাজার রুপি পুরস্কার জিতেছিল।

হর্ষিত আরও বলে, ‘স্কুলে পড়ার সময় আমি হলিউড ও বলিউডের তারকাদের পোস্টার ডিজাইন করতাম। সে সময় এই করে ৪০ হাজার থেকে ৫০ হাজার রুপি পর্যন্ত আয় করেছিলাম।’6a9c86bb1fe3024b149e6b2a0aeeab6c-59809cc64f8b8