শখ করে অনেক দাম দিয়ে নামিদামি ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন কিনেছেন, তারপরও কয়েকদিন ব্যবহারেরই স্লো! এই ফোন নিয়ে আপনার বিরক্তির শেষ নেই কিন্তু তার চেয়ে মন খারাপই বেশি।

এক আধবার এটাকে নিয়ে হয়তো কাস্টমার কেয়ারে গিয়েছেন, কিন্তু ফোন কিনে যদি দিনের পর দিন কাস্টমার কেয়ারেই ফেলে রাখতে হয় তাহলে দামি ফোন কিনে লাভ কী হলো!

ভাবছেন, ফোনের এতো শত বিজ্ঞাপন, আসলে সব ভুয়া? সমস্যাটা হতে পারে আপনার ফোন ব্যবহারের ত্রুটির কারণেও। তাই জেনে নিন দৈনন্দিন আপনার কোন অভ্যাসগুলোর প্রভাবে স্মার্টফোন স্লো হয়ে যাচ্ছে।

১. অনেকেই মোবাইলের মেমরি ফুল না হয়ে যাওয়া পর্যন্ত এক্সটার্নাল মেমরি কার্ড ব্যবহার করেন না। এতে করে মোবাইলের পারফরম্যান্সের ওপর প্রভাব পড়ে। ইন্টারনাল মেমরিতে খালি জায়গা যতো কমতে তাকবে, মোবাইলও ততোই স্লো হতে থাকবে। তাই মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা উচিৎ শুরু থেকেই।

২. অনেকেই প্রয়োজন ছাড়া দীর্ঘদিন পর্যন্ত ফোন শাট ডাউন বা রিবুট করেন না। কিন্তু ফোনের ক্যাশ ক্লিয়ারের জন্য সপ্তাহে অন্তত একদিন ফোন শাট ডাউন অথবা রিবুট করা উচিত।

৩. পানি লাগলে ফোনের ক্ষতি হয় এটা জেনেও অনেকেই অনেক সময় ভেজা হাতে ফোন ব্যবহার করেন। এতে করে ফোনের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। বিশেষ করে ফোনে হোমবাটনে কখনই পানির স্পর্শ লাগতে দেওয়া উযচিৎ নয়।

৪. যেকোন অ্যাপ ইন্সটল করার আগে সর্তক থাকুন। এটি আপনার ফোনে ভাইরাস আক্রমণের কারণ হতে পারে। ফোনে একবার ভাইরাস প্রবেশ করলে মহাবিপদে পড়বেন।

৫. অনেক সময় যেসব সফটওয়ার ইনস্টল করার অনুমতি দেওয়া হয় না, জোর করে অনেকেই সেসব সফটওয়ার স্মার্টফোনে ইনস্টল করার চেষ্টা করেন। এতে করে ফোনের মারাত্মক ক্ষতির আশঙ্কা থাকে।

BD ONline Media

smart