অ্যাপলের আইফোন টেন হয়তো ব্যবহারকারীদের মধ্যে আশানুরূপ সাড়া ফেলেনি। তাই বলে কোনো দিক থেকেই ব্যর্থ বলা যায় না। ২০১৭ সালে শ্রেষ্ঠ মুঠোফোনের সব তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। কিন্তু অ্যাপল যতটা আশা করেছিল, বিক্রি সে তুলনায় কম। অতিরিক্ত মূল্য একটা বড় কারণ। ফলাফল-তুলনামূলক কম মূল্যের আইফোনে ঝুঁকেছে গ্রাহক।

সে যা-ই হোক, তাই বলে এই গ্রীষ্মেই আইফোন টেন তৈরি বন্ধ করে দিতে হবে? কেজিআই সিকিউরিটিজের বিশ্লেষক ও অ্যাপল বিশেষজ্ঞ মিং চাই কু সম্প্রতি এমন তথ্যই জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আইফোন টেনের নতুন চালান বাজারে ছাড়ার পর আশানুরূপ বিক্রি না হলে এ বছরেই স্মার্টফোনটি তৈরি বন্ধ করার ঘোষণা দিতে পারে অ্যাপল।

আইফোনের এক দশক পূর্তিতে ৮ ও ৮ প্লাসের সঙ্গে গত সেপ্টেম্বরে বাজারে আসে আইফোন টেন। নকশায় ভিন্নতা থাকায় গ্রাহকদের মধ্যে কৌতূহল তৈরি করে এটি। অন্যদিকে ফোনটির চড়া দামে অনেকেই হতাশ হয়েছেন। এতে মাস কয়েকের মধ্যেই জনপ্রিয়তা হারায় আইফোন টেন।

অ্যাপলের জন্য বিশাল বাজার চীনেও খুব একটা সফলতার মুখ দেখেনি আইফোন টেন। ক্রেতাদের দাবি, অতিরিক্ত মূল্যের এই ফোনে আশানুরূপ নতুনত্ব নেই। এ ছাড়া ফোনটি তুলনামূলক ভারী, প্রতিদিনের ব্যবহারের জন্য পর্দাও বেশ বড়।

তবু অ্যাপলের জন্য আইফোন টেন একটি মাইলফলক। বিশেষ করে, আগের মডেলগুলোর তুলনায় এর নকশা নতুন।

vgvg